প্রধান কোচবিহীন কয়েকটি সিরিজ কাটানোর পর অবশেষে উইন্ডিজ সফরে কোচ পেয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। উইন্ডিজে টাইগারদের হাল ধরেন ইংলিশ স্টিভ রোডস। সেই সিরিজের সাদা বলের ফরম্যাটে ব্যাটিং কোচ হিসেবে যুক্ত হোন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ব্যাটসম্যান নীল ম্যাকেঞ্জি। তবে টেস্টের জন্য আলাদা কোচ নিয়োগের কথা ভাবছে বিসিবি। এমনটিই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন।
দেশের বাইরে টাইগারদের বেশি ম্যাচ খেলার তাগিদ ম্যাকেঞ্জির

উইন্ডিজে নতুন কোচের অধীনে ভালো করেছে বাংলাদেশ দল। তিনটি সিরিজের দুইটিই জিতেছে সফরকারীরা। তবে সফরের সূচনাটা মোটেও ভালো হয় নি। টেস্টে টাইগারদের ব্যাটিং নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছে। দুই টেস্টেই বড় ব্যবধানে হেরে সিরিজ হেরেছে সাকিববাহিনী। অন্যদিকে একদিনের ফরম্যাট আর টি-টোয়েন্টিতে ভালো করেছেন টাইগার ব্যাটসম্যানরা। ভিন্ন বলে পারফরম্যান্সের পার্থক্য নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে।

সাদা বল আর লাল বল ভেদে আলাদা ব্যাটিং কোচ নিয়োগের পরিকল্পনায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বিসিবির সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত নীল (ম্যাকেঞ্জি) আমাদের সাদা বলের ক্রিকেটের ব্যাটিং কোচ। কিন্তু লাল বলের ক্রিকেটের জন্য কাউকে আমাদের দরকার।’

শুরুর দিকে নীল ম্যাকেঞ্জিকে সব ফরম্যাটের ব্যাটিং কোচ করার পরিকল্পনা করেছিল বিসিবি। তবে সবসময় ম্যাকেঞ্জিকে পাবে না বাংলাদেশ। অন্যদিকে ২০১৯ পর্যন্ত চুক্তি করা হয়েছে এই দক্ষিণ আফ্রিকানের সাথে। তাই, নতুন পথে হাঁটতে হচ্ছে বিসিবিকে। আর এতে সহযোগিতা করছেন পরামর্শক গ্যারি কারস্টেন।

এই প্রসঙ্গে নিজামউদ্দীন আরও বলেন, ‘আমরা চেয়েছিলাম লাল বলের ক্রিকেটটাও নিলই দেখুক। কিন্তু তাকে পাওয়া যাবে না। কোচিং স্টাফদের বেশিরভাগ নতুন সদস্যদের আমরা নিয়োগ দিয়েছি বিশ্বকাপ মাথায় রেখে। কিন্তু আমরা এমন কাউকে চাইছি যিনি লাল বলেও সাহায্য করতে পারবে এবং অন্য কাজও করবে। আমরা কোচদের সঙ্গে আলোচনা করছি। গ্যারি কারস্টেনও এই প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করছেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here