আগামীকাল বিকাল ৫ টায় দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের কাছে শ্রীলঙ্কা একটি পরিচিত মুখ। গত দুই বছরে শ্রীলংকার বিপক্ষে একাধিক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। এ বছরের শুরুতেই শ্রীলংকার সাথে টেস্ট সিরিজ সহ ত্রিদেশীয় ওয়ানডে টুর্নামেন্টে খেলেছে বাংলাদেশ দল।

শুধু তাই নয় শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে শ্রীলঙ্কার মাটিতে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এখন পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪৪টি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। জয় দিক দিয়ে শ্রীলংকা ৩৬ টি এবং বাংলাদেশ জয়লাভ করেছে ৬ টি ম্যাচে। র্যাঙ্কিংয়ে শ্রীলঙ্কা থেকে বাংলাদেশে একধাপ উপরে থাকলেও এশিয়া কাপ জিততে হলে বাংলাদেশকে সেরাটা দিতে হবে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ওপেনার তামিম ইকবাল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই ওপেনার এখন পর্যন্ত ২০ টি ম্যাচ খেলেছেন। ১৯ ইনিংসে ৩৩.৮৪ গড়ে ৬৪৩ রান করেছেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে ফরম্যাটে বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছেন তামিম ইকবাল।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তামিম ইকবাল সেঞ্চুরি করেছেন দুটি এবং হাফ সেঞ্চুরি করেছেন ৪ টি। শ্রীলংকার বিপক্ষে এক ইনিংসে তামিমের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর ১২৭ রান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনি খেলেছেন ২১ টি ম্যাচ।

১৯ ইনিংসে ৩৫.৭০ গড়ে ৬০৭ রান সংগ্রহ করেছেন সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এখনো পর্যন্ত সেঞ্চুরির দেখা পাননি বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। তবে এক ইনিংসে ৯২ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। এই দলের বিপক্ষে ৬ টি অর্ধশতক আছে সাকিব আল হাসানের। শ্রীলংকার বিপক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের তালিকায় তিন নম্বরে রয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল।

বাংলাদেশের হয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি ২৬ টি ম্যাচ খেলেছেন সাবেক এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। ২৪ ইনিংসে ২৩.৮৭ ঘরে ৫৭৩ রান করেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। সেঞ্চুরি না থাকলেও ৪ টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে তার। এরপরে রয়েছে জাতীয় দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

মোহাম্মদ আশরাফুলের সমান ২৬ টি ম্যাচ খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে ফরম্যাটে ব্যাটিং রেকর্ড একদমই ভালো না মুশফিকুর রহিমের। ১৯.৩৩ গড়ে ২৪ ইনিংসে ৪৬৪ রান করেছেন মুশফিকুর রহিম। শ্রীলংকার বিপক্ষে মাত্র দুটি হাফ সেঞ্চুরি আছে মুশফিকুর রহিমের।

পঞ্চম নম্বরে রয়েছেন আরেক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে রিয়াদের পারফর্মেন্স ও তেমন ভালো নয়। ২৩ ম্যাচে ২০ ইনিংসে ২৪.১১ গড়ে ৪১০ রান করেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। শ্রীলংকার বিপক্ষে মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে এই ব্যাটসম্যানের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here