জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ ওয়ানডে সিরিজ জয় লাভ করবে এটা অনেক আগে থেকেই জানত বাংলাদেশ ক্রিকেট প্রেমীরা।কিন্তু সাকিব-তামিম বিহীন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ এমন ভাবে সিরিজ জিতবে এটা হয়ত অনেকেই আশা করেননি। বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন শাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল।বিশেষ করে ব্যাটিংয়ের তামিম ইকবালের ব্যাটিংটা ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

দীর্ঘ সময় ধরে বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান সমস্যা ছিল ওপেনিং জুটি। যে সমস্যাটি ১ বা ২ বছরের নয় টানা প্রায় ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে। এসময়ের তামিম ইকবাল এর সাথে জুটি বাঁধতে পারেনি কোন ক্রিকেটার। মাঝেমধ্যে ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, শাহরিয়ার নাফিস, জুনায়েদ সিদ্দিকুর জুটি বাধলে ও বেশিদিন স্থায়ী হতে পারেননি তারা।

সর্বশেষ তামিমের সাথে ওপেনিং এ স্থায়ী হন লিটন কুমার। এর আগে সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস ব্যর্থ হয়েছেন বারবার। তবে এবার স্থায়ীভাবে ওপেনার পেতে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল। দীর্ঘদিন পর দারুণ ফর্মে ফিরছেন বাংলাদেশ দলের দুই ওপেনার সৌম্য সরকার এবং ইমরুল কায়েস। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে ইমরুল কায়েস।

প্রথম ম্যাচে ১৪৪ রানের পর দ্বিতীয় ম্যাচেও করেছেন ৯০ রান। আর গতকাল করেছেন ১১৫ রান। এছাড়াও এশিয়া কাপে একটি ম্যাচে ভালো ব্যাটিং করেছিলেন তিনি। ইমরুল কায়েসের সাথে দারুণ ফর্মে রয়েছেন লিটন দাস।

এশিয়া কাপে সেঞ্চুরির পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন তিনি। প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ৭৭ বলে তিনি ৮৩ রান করেন এ হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান। অবশ্য সিরিজের শেষ ম্যাচে শূন্য রানে আউট হয়েছেন তিনি।

তবে জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েই আলোচনার টেবিলে রয়েছেন সৌম্য সরকার। জাতীয় ক্রিকেট লীগে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন তিনি। শেষ ৭ ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি সহ তিনটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। এর মধ্যে একটি রয়েছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে। শেষ ৭ ইনিংসে সৌম্য সরকার এর স্কোর (১০৩*,১৩,৩৩,৭৬,৭১,১০২*,৬৬)।

জাতীয় ক্রিকেট লিগের চমৎকার পারফরমেন্সের কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচের স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন তিনি। আল সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বসলেন সৌম্য। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে ম্যাচে ৯২ বলে ৯ টি চার এবং ৬ টি ছক্কা সাহায্যে ১১৭ রান করে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন সৌম্য সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here